আবারো বাংলাদেশ থেকে ব্রিটিশ ভিসা দেয়া শুরু

জাতীয়

যুক্তরাজ্যে সফরের জন্য বাংলাদেশ থেকে আবারো ব্রিটিশ ভিসা দেয়া শুরু হয়েছে। চলমান মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে এতদিন ব্রিটিশ ভিসা বন্ধ ছিল। ঢাকা-লন্ডন বেশ কয়েকটি ফ্লাইট চালুর পর এবার ভিসাও চালু করেছে দেশটি। পরিস্থিতির উন্নতি হলে পর্যায়ক্রমে সব দেশই

ভিসা চালু করা হবে বলে জানা গেছে।ইতালির বেশ কিছু ফ্লাইটে বাংলাদেশি যাত্রীদের করোনা শনাক্ত হওয়ায় সমালোচনার মুখে পড়তে হয়। পরবর্তীতে ইতালির প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশসহ কয়েকটি দেশ থেকে ইতালি প্রবেশে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করেন।

এরপর এই বিষয়ে কঠোর হয় বাংলাদেশ সরকারও। বিদেশগামী যাত্রীর জন্য সরকার নির্ধারিত সেন্টার থেকে করোনা নেগেটিভ সনদ নেয়া বাধ্যতামূলক ঘোষণা করা হয়।আদেশ দেয়া হয়, গন্তব্য দেশগুলোর বাধ্যবাধকতা থাকলেই শুধু আকাশ ভ্রমণে করোনা নেগেটিভ সনদ

বাধ্যতামূলক। ব্রিটেন ভ্রমণে কোভিড-১৯ সনদ বাধ্যতামূলক নয়।জানা গেছে, বাংলাদেশ থেকে লন্ডন যাওয়ার তিনটি ফ্লাইট ইতোমধ্যে চালু হয়েছে। সপ্তাহে ১৪টি ফ্লাইট ঢাকা ও লন্ডনের মধ্যে চলাচল করছে। এ হিসাবে দিনে গড়ে দুটি ফ্লাইট ঢাকা ও লন্ডনের মধ্যে চলাচল করছে।

ব্রিটিশ সরকার ৫৭টি দেশের যাত্রীদের ওই দেশে অবতরণের পর ১৪ দিন যাত্রীর পছন্দের জায়গায় কোয়ারেন্টাইনে থাকা বাধ্যতামূলক করেছে। সে হিসাবে বাংলাদেশের সব যাত্রীর কোয়ারেন্টাইনে থাকাও বাধ্যতামূলক। যাত্রীকে বোর্ডিং পাস নেয়ার আগেই কোথায় কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন, সেই ঠিকানা উল্লেখ করতে হবে।ব্রিটিশ কর্মকর্তারা দৈবচয়নের মাধ্যমে আকস্মিক যাত্রীর দেয়া ঠিকানায় পরিদর্শনে গিয়ে কোয়ারেন্টাইনে না পেলে এক হাজার পাউন্ড জরিমানা করবেন। দ্বিতীয় দিন না পেলে দুই হাজার পাউন্ড জরিমানা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *