ইউএনওর মাথার খুলি ভেঙ্গে ভেতরে ঢুকে গেছে, অপারেশন সম্ভব না

জাতীয়

দুর্বৃত্তের হামলায় গুরুত্বর আহত দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমের মাথার খুলি ভেঙ্গে ভেতরে ঢুকে গেছে। তার অবস্থা এখন সংকটাপন্ন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে নিউরো সায়েন্সের চিকিৎসকরা জানান, ওয়াহিদা খানমের মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হয়েছে। তার রক্তচাপ কমে গেছে, পালসও ভালো না, এ অবস্থায় অস্ত্রোপচার সম্ভব নয় বলে জানান চিকিৎসকরা।

একইসাথে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশেও নেওয়া যাবে না। হাসপাতালের গঠিত একটি মেডিকেল টিম তাকে পর্যবেক্ষণ করছে। এর আগে দুপুর ২টার পর বিশেষ হেলিকপ্টারযোগে তাকে ঢাকার পুরাতন বিমান বন্দরে আনা হয়। সেখান থেকে নেয়া হয় ইন্সটিটিউট অব নিউরো সায়েন্সেস ও হাসপাতালে।

উল্লেখ্য, বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে সরকারি বাসভবনে ঢুকে ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার বাবাকে পিটিয়ে আহত করে দুর্বৃত্তরা। গুরুতর অবস্থায় তাদের প্রথমে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে রংপুর কমিউনিটি হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসা দেয়া হয়। তার বাবাকে ঘোড়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

আরো পড়ুন…মালদ্বীপে ব্যক্তিগত দ্বীপে মডেলদের নিয়ে বিলাসবহুল পার্টির আয়োজন করেছিলেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। ২০১৫ সালে জুলাইয়ে দ্বীপটিতে একমাস ধরে এ পার্টি চলে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউইয়র্ক পোস্ট জানায়, ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের দুই সাংবাদিক ব্র্যাডলি হোপ ও জাস্টিন শেকের প্রকাশিত একটি বইতে যুবরাজের এ বিলাসী জীবনের কথা উঠে আসে। এ দুই সাংবাদিক দীর্ঘদিন ধরে সৌদি রাজপরিবারের তথ্য অনুসন্ধান করে আসছেন। মঙ্গলবার তাদের লেখা ‘ব্লাড অ্যান্ড অয়েল: মোহাম্মদ বিন সালমান’স রুথলেস কোয়েস্ট ফর গ্লোবাল পাওয়ার’ নামে বইটি প্রকাশিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *