এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে বেগুন চাষ, সব গাছ কেটে ফেলল দুর্বৃত্তরা

জাতীয়

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলায় দরিদ্র কৃষকের ১০ শতক জমির বেগুন গাছ কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার রাতে উপজেলার ষাইটবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।ভুক্তভোগী কৃষকের নাম বাপ্পী মোল্লা। বেগুন গাছ কেটে ফেলায় ৫০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন বাপ্পী। তিনি ওই গ্রামের আনছার আলী মোল্যার ছেলে।

বাপ্পী মোল্লা জানান, মাঠে তার মাত্র ১০ শতক জমি রয়েছে। অন্যের বাড়িতে কাজের পাশাপাশি নিজ জমিতে চাষাবাদ করে সংসার চলে তার। কয়েকমাস আগে একটি এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে শসার আবাদ করেছিলেন তিনি। বৃষ্টির কারণে শসা গাছ মরে যায়। পুনরায় প্রতিবেশীর কাছ থেকে টাকা ধার করে ওই জমিতে বেগুনের চাষ করেছিলেন। কয়েকদিন পরই গাছে বেগুন ধরা শুরু করতো। রোববার সকালে নিজের ক্ষেতে বেগুন গাছ কাটা অবস্থায় দেখতে পান তিনি।

তিনি আরও বলেন, আমার শত্রু কারা? এটি করে তাদের কি লাভ হলো? আমি তো কারও ক্ষতি করিনি। এখন সারা বছর আমার সংসার চলবে কীভাবে? এনজিওর টাকা পরিশোধ করব কীভাবে?কালীগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহফুজুর রহমান মিয়া বলেন, বাপ্পী মোল্লার ক্ষেতের বেগুন গাছ কেটে ফেলার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছিলাম। ভুক্তভোগী কৃষক থানায় অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরো পড়ুন…২ বছর আগে ঘরের ছোট ছেলে সনাতন ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। এবার একই পরিবারের আরও ৩ জন সদস্য ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার পৌর শহরের ইকড়ছই গ্রামের মো. সুলেমান হোসেন সৈকত (সুদীপ কর) ২০১৮ সালে সনাতন ধর্ম ত্যাগ করার ২ বছর পর তার বাবা-মা ও বড়ভাই ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *