এবার মালয়েশিয়া যেতে পারবেন না বাংলাদেশিরা

জাতীয়

করোনার কারণে মালয়েশিয়ায় প্রবেশে দীর্ঘমেয়াদি নিষেধাজ্ঞার তালিকায় বাংলাদেশসহ ৯টি দেশের অভিবাসন পাস হোল্ডারদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।বৃহস্পতিবার মালেশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা বার্নামা জানায়, মালয়েশিয়ায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার তালিকায় যুক্ত হয়েছে বাংলাদেশ, যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ব্রাজিল, স্পেন, ফ্রান্স, ইতালি, সৌদি আরব ও রাশিয়া।

এছাড়া মালয়েশিয়ার সরকার জানিয়েছে, ৭ সেপ্টেম্বর থেকে ভারত, ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপাইনের অভিবাসন পাস হোল্ডারদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।সিনিয়র মন্ত্রী (প্রতিরক্ষা) ইসমাইল সাবরিকে উদ্ধৃত করে খবরে বলা হয়েছে- যেসব দেশে করোনার আক্রান্তের সংখ্যা দেড় লাখের বেশি সেই দেশগুলো এ নিষেধাজ্ঞার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯ হাজার ৩৭৪ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১২৮ জন। করোনা মহামারীর শুরুর দিকে মার্চ মাস থেকেই মালয়েশিয়ায় পর্যটক ও বাণিজ্যিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে।এমনকি উচ্চঝুঁকির কথা বিবেচনা করে আরও দেশকে এ তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। এর আগে তিনি জানিয়েছিলেন, এ নিষেধাজ্ঞায় স্থায়ী বাসিন্দা, প্রবাসী, শিক্ষার্থীরা আওতাভুক্ত থাকবে।

সম্প্রতি বিভিন্ন দেশ থেকে মালয়েশিয়ায় আসা ও অনিবন্ধিত অভিবাসীদের মধ্যে নতুন করোনা সংক্রমিতের ক্লাস্টার চিহ্নিত হওয়ার পর এ নিষেধাজ্ঞার আওতা বাড়ানো হয়েছে বলে প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন। এদিকে,বিমান আগেই জানিয়েছিল, আগামী ৭ সেপ্টেম্বর থেকে বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে কাতারপ্রবাসী যাত্রীদের জন্য।

তবে এবার জানা গেল, আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস ঢাকা-দোহা নিয়মিত সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করবে। তবে প্রথমদিকে সপ্তাহে দুটি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।গালফবাংলাকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিমানের কাতার শাখা পরিচালক রেজাউল আহসান।সপ্তাহের বৃহস্পতি ও সোমবার এই দুটি ফ্লাইট দোহা থেকে ঢাকায় যাবে। পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে সিলেট ও চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে সরাসরি ফ্লাইট পরিচালিত হবে বলে জানা গেছে।

কাতারের দোহা থেকে এখন সপ্তাহে দুটি ফ্লাইট পরিচালনা করছে ইউ এস বাংলা এয়ারলাইনস। এটিও আগামী কিছুদিন পর থেকে সপ্তাহে তিনটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে।তবে কাতার এয়ারওয়েজ দোহা থেকে এখনো কোনো কাতারপ্রবাসী যাত্রী গ্রহণ করছে না। কবে থেকে তা শুরু হবে, সেটিও কেউ নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *