এবার সড়ক দু’র্ঘটনায় প্রথম না’রী ওসির মৃ’ত্যু

জাতীয়

সড়ক দু’র্ঘটনায় মা’রা গেছেন পশ্চিমবঙ্গে কলকাতার প্রথম না’রী ও’সি দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায়। এতে তার দেহরক্ষী ও গাড়ির চালকও নি’হত হয়েছেন।শিলিগুড়ির ডাবগ্রামে কাজ সেরে রাতেই কলকাতা ফেরার জন্য রওয়ানা হয়েছিলেন দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায়। সারারাত তার গাড়ি চলেছিল। ভোর ছয়টা নাগাদ দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়েতে তার গাড়ি প্র’চণ্ড গতিতে চলছিল।

হুগলির দাদপুরে গাড়িটি একটি দাঁড়িয়ে থাকা বালু বোঝাই ট্রা’কের পেছনে ধা’ক্কা মা’রে। গাড়ির সামনেটা পুরো দু’মড়ে-মু’চড়ে যায়।কাছাকাছি থাকা পু’লিশ এসে দেবশ্রী, তার দে’হরক্ষী তাপস বর্মন, চালক মনোজ সাহার দে’হ উ’দ্ধার করে। হা’সপাতালে নিয়ে গেলে তাদের মৃ’ত ঘোষণা করা হয়।হুগলি পু’লিশ প্রাথমিক ত’দন্তের পর মনে করছে,

গাড়ির চালক ঘুমিয়ে পড়েছিলেন। তাই খুব জো’রে গাড়িটি গিয়ে ট্রাককে আ’ঘাত করে।দেবশ্রী কলকাতা পু’লিশের চাকরিতে যোগ দিয়েছিলেন সাব ই’ন্সপেক্টর হিসাবে। পরে তিনি উত্তর বন্দর থানার ওসি হন। কলকাতার প্রথম না’রী ওসি ছিলেন তিনি। তিনি ছিলেন দক্ষ ও কড়া অফিসার। মাঝখানে গো’য়েন্দা বিভাগেও ছিলেন। তার স্বামীও আগে কলকাতা পু’লিশের অফিসার ছিলেন।সূত্র : জি নিউজ

আরও পড়ুন= করোনাভাইরাস মোকাবিলায় পাকিস্তানের প্রশংসা করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তাদের মতে প্রতিবেশী দেশগুলোর তুলনায় পাকিস্তান এই ভাইরাস মোকাবিলা সাফল্য অর্জন করেছে। যেখানে ভারত পুরোপুরি ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, পাকিস্তানের কাছ থেকে শেখার আছে অন্যদেশগুলো।

সংবাদ সম্মেলনে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি তুলে ধরার সময় এই সংকট মোকাবিলায় পাকিস্তানের প্রশংসা করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান তেদ্রোস আধানম গাব্রিয়েসাস আধানম। তিনি জানান, পোলিও নির্মূলের জন্য পাকিস্তানে বহু বছর ধরে যে অবকাঠামো গড়ে তুলা হয়েছে কভিড -১৯ মোকাবিলায়ও তা কাজে দিয়েছে।

“পোলিও’র জন্য দুয়ারে দুয়ারে শিশুদের টিকা দেওয়ার জন্য প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত স্থানীয় পর্যায়ের স্বাস্থ্যকর্মীরা যেভাবে কাজ করেন তা করোনার ক্ষেত্রে নজরদারি, কন্টাক্ট ট্রেসিং ও চিকিৎসার ক্ষেত্রেও ব্যবহার করা গেছে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *