ওসি প্রদীপের বিপিএম নিয়ে সংসদে একি বললেন রুমিন ফারহানা

জাতীয়

বিএনপির সংরক্ষিত আসনের এমপি ব্যারিষ্টার রুমিন ফারহানা বলেছেন, জাতীয় সংসদের অধিবেশনে বাংলাদেশকে অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করা হচ্ছে। তিনি বলেন, তিনি বিচার বহির্ভূ-ত হ-ত্যাকা-ণ্ড নিয়েও অভিযোগ করেন। এদিকে, ব-ঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয় বিল-২০২০ সহ পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে সোমবার মোট ৬টি বিল উ-ত্থাপন করা হয়েছে। সংসদীয় কমিটির সংশোধনীসহ বিলগু-লো পাসের সুপারিশ করা হয়। সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় স্পি-কার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের এ অধিবেশন শুরু হয়।

ব্যারিস্টার রুমিন বলেন, এই যে টেকনাফে কু-খ্যাত ওসি প্রদীপ ২০১৯ পুলিশের স-র্বোচ্চ পদক বিপিএম পাওয়ার ক্ষেত্রে যে ৬ টি কথা উ-ল্লেখ করা হয় তার প্রত্যেকটি বিচারবহির্ভূত হ-ত্যাকা-ণ্ড। বিচারবহি-র্ভূত হ-ত্যাকা-ণ্ডের পুর-স্কারস্ব-রূপ কোনো পুলিশ অফিসার যদি সর্বোচ্চ পুলিশ পদক পান, তাহলে সেটি তো বিচারবহি-র্ভূত হ-ত্যাকা-ণ্ডকে উৎসাহিত করবে সেটাই স্বাভাবিক। শুধু যে বি-চারবহির্ভূত হ-ত্যাকা-ণ্ড তাই নয়,

এই হ-ত্যাকা-ণ্ডের পেছনে অর্থ লেনদেন বিষয় জড়িত আছে। দেখা যায় সাধারণ পরিবার থেকে মানুষ ধরে নিয়ে যাওয়া হয় অ-র্থ দাবি করা হয় এবং অর্থ না পেলে ক্র-সফায়ারে ভয় দেখানো হয়। অথচ আমরা শুনেছি আমাদের স্ব-রাষ্ট্রম-ন্ত্রী বলেছেন, বাংলাদেশ গু-ম বলে কোন শব্দ নাই। একই লাইন ধরে পুলিশের আইজি কিছুদিন আগে বলেছেন ক্র-সফায়ার নামেও বলে কিছু নাই। এটি এনজি-ওগু-লোর শব্দ।তিনি বলেন, যে রা-ষ্ট্রে বিচার বহি-র্ভূত হ-ত্যাকা-ণ্ডকে বিভিন্ন-ভাবে উৎসাহিত করা হয়।

সেখানে ই-ঙ্গিত করে যে সেখানে বিচার বিভাগ ধ্বংস হয়েছে। সেখানে আইনের শাসন ধ্বংস হয়েছে। সেখানে মানুষ বিচারের প্রতি আস্থা হারিয়েছে এবং সেই রা-ষ্ট্র অকার্যকর রা-ষ্ট্রে পরিণত হয়েছে।

অধিবেশনে সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সরকার ও বিরোধী দলীয় সদস্যরা উপ-স্থিত ছিলেন। অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উত্থাপন ও জরুরি জনগু-রুত্বপূ-র্ণ নোটিশের কার্যক্রম স্থগিত করা হয়। অধিবেশনের উত্থাপিত বিলগু-লো হচ্ছে- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয় বিল-২০২০, হবিগ-ঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় বিল-২০২০ ও চাঁদপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বিল-২০২০। এ সময় বিল নিয়ে কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। অধিবেশনে এছাড়াও বাংলাদেশ ট্রাভেল এজে-ন্সি নিবন্ধন–নিয়-ন্ত্রণ ও সংশোধন বিল ২০২০ সংসদে উত্থাপন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *