কো’পা’নোর সময় যা বলে চিৎ’কার করেছিলেন সেই ইউএনও

জাতীয়

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমকে যখন আ’ক্র’মণ’কারী কো’পাচ্ছিল তখন তিনি বার’বার চিৎকার দিয়ে বলছিলেন, ‘আব্বা দেখতো কোন বেয়াদব বাসায় এসেছে। বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) রংপুর সার্কিট হাউজে গণ্যমাধ্যমকে একথা জানান ইউএনও ওয়াহিদা খানমের মা।

গতকাল বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) মধ্যরাতে ঘোড়াঘাটে সরকারি বাসায় হাম’লার শি’কার হন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা। এরপর তাকে ও তার বাবাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার বাবা চিকিৎ’সাধীন আছেন। তবে ইউএনওর অবস্থার অব’নতি হওয়ায় দুপুরে রংপুর ক্যান্টনমেন্ট থেকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকায় আনা হয়েছে। পরে তাকে রাজধানীর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসাইন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে সাংবাদিকদের হাসপাতালের পরিচালক কাজী দ্বীন মোহাম্মদ বলেছেন, দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমের অবস্থা সংক’টাপন্ন হওয়ায় এবং তার মা’থার খুলি ভে’ঙে ভেতরে ঢুকে যাওয়ায় এখন অ’স্ত্রোপ’চার কিংবা বিদেশে নেয়া সম্ভব না।

দিনাজপুরের অতি’রিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আসিফ মাহমুদ বলেন, বুধবার রাতের কোনও একটা সময় হা’মলা হয়েছে। ঠিক কী কারণে এই ঘটনা ঘটেছে, তা এখনও স্পষ্ট নয়।ঘোড়াঘাট থানার ওসি বলেছেন, ইউএনওর বাসার সিসি ফুটেজ সংগ্রহ করা হচ্ছে। দোষীদের শনাক্ত করা হবে।

আরো পড়ুন…ইসরায়েলের কোনো বিমানকে আকাশসীমা ব্যবহারের সুযোগ দেবে না কুয়েত। সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে সেদেশের প্রভা’বশা’লী দৈনিক ‘আলকাবাস’ এ খবর দিয়েছে। ইসরায়েলি বিমান সংযুক্ত আরব আমিরাতে যাওয়ার সময় কুয়েতের আকাশসীমা ব্যবহার করেছে বলে খবর প্রকাশিত হওয়ার পর দেশটি তা প্র’ত্যাখ্যা’ন করল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *