গণতন্ত্র ফেরাতে আন্দোলনের বিকল্প নাই: ফখরুল

আন্তর্জাতিক

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ‘গৃহবন্দি অবস্থায়’ উল্লেখ করে তাকে মুক্ত করতে এবং গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে আন্দোলনের বিকল্প নাই বলে মন্তব্য করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) দলের ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এক ভার্চুয়াল আলোচনায় তিনি এ মন্তব্য করেন।তিনি বলেন, গণতন্ত্রের জন্যই আজকে গৃহবন্দি অবস্থায়, কারাবন্দি হয়ে রয়েছেন। তার যে ত্যাগ গণতন্ত্রের জন্য, বাংলাদেশের মানুষের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের জন্য-এটা নিসন্দেহ অপরিসীম একটা ত্যাগ।

মির্জা ফখরুল বলেন, আজকে দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আমাদের বড় প্রতিজ্ঞা হোক- যেকোনো মূল্যে আমাদের চ্যালেঞ্জ গণতন্ত্রকে উদ্ধার করা, খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা। তাকে মুক্ত না করলে গণতন্ত্র মুক্ত হবে না-এটা হচ্ছে জরুরি কথা এবং সেটা আমাদের অবশ্যই অত্যন্ত যথাযথ আন্দোলনের মধ্যদিয়ে সফল করতে হবে।এজন্য দল ও অঙ্গসংগঠনগুলোকে সংগঠিত হওয়া আহবানও জানান বিএনপি মহাসচিব।

বিশ্ব রাজনীতি পরিবর্তিত হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে যে পরিস্থিতি ছিল, এখনকার পরিস্থিতি এক নয়, ১৯৭৫ সালে যে পরিস্থিতি ছিলো এখনকার পরিস্থিতি এক নয়। আজকে ২০২০ সালে যে বিশ্ব রাজনীতির প্রেক্ষাপট, সেই বিশ্ব রাজনীতির প্রেক্ষাপটকে অনুধাবন করে এবং যোগ্য কৌশল উদ্ভাবন করে আমাদের সেই কৌশলের সঙ্গে গণতান্ত্রিক রাজনীতিকে প্রতিষ্ঠা করার জন্য গণতান্ত্রিকভাবেই এগিয়ে যেতে হবে।

৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর এ ভার্চুয়াল আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। ১৯৭৮ সালের ১ সেপ্টম্বর রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেন।প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শেরে বাংলা নগরে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যরা জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

মহাসচিবের সভাপতিত্বে ও প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানির সঞ্চালনায় ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, জমিরউদ্দিন সরকার, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, মহানগর দক্ষিণের হাবিব উন নবী খান সোহেল, উত্তরের মুন্সি বজলুল বাসিত আনজু, যুবদলের সাইফুল আলম নিরব, মহিলা দলের আফরোজা আব্বাস প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।অনুষ্ঠানের শুরুতে উলামা দলের শাহ নেছারুল হক দলের প্রতিষ্ঠাতাসহ নেতা-কর্মীদের জন্য মোনাজাত পরিচালনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *