চাকরি দেয়ার কথা বলে নারীকে রু’মে নি’য়ে গণ’ধ’র্ষ’ণ

অপরাধ

আশুলিয়ার পলাশবাড়ি এলাকায় চাকরির প্র’লোভন দেখিয়ে এক নারীকে গণ’ধ’র্ষ’ণের অভিযোগে দুইজনকে আ’টক করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকালে ওই এলাকা থেকে অভিযুক্ত বখাটে মমিন ও রফিকুলকে আ’টক করেছে আশুলিয়া থানার পুলিশ।আট’করা হলেন, নাটোরের সিংড়া উপজেলার মোবারক হোসেনের ছেলে মো. মমিন (২৫) এবং মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার রফিকুল ইসলাম। এছাড়া ঘটনার সাথে জড়িত আরিফ নামে এক বখা’টে পলা’তক রয়েছে।

পুলিশ জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার (১৯ আগস্ট) বিকেলে ভুক্তভোগী নারী শ্রমিককে চাক’রির দেয়ার কথা বলে মুঠোফোনে ডেকে নিয়ে যায় তার পূর্ব পরিচিত সহকর্মী মমিন। পরে তাকে কৌশলে আশুলিয়ার পলাশবাড়ি কাঠালতলা এলাকার হক ভিলার ৯তলা ভাড়া বাসায় নিয়ে মমিন ও তার দুই বন্ধু রফিকুল এবং আরিফ মিলে ওই নারীকে আ’ট’কে রেখে পালা’ক্র’মে ধ’র্ষ’ণ করে।

পরে বিষয়টি কাউকে জানালে মে’রে ফেলার হু’মকি তাকে ছে’ড়ে দেয়া হয়। এ ঘটনায় বিষয়টি জানিয়ে ভুক্তভোগী ওই নারী আশুলিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুইজনকে আ’টক করে।আশুলিয়া থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) কামরুজ্জামান জানান, ভুক্তভোগী নারীর অভিযোগের

ভিত্তিতে আশুলিয়ার পলাশবাড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে ধ’র্ষ’ণের ঘটনায় জড়িত দুইজনকে আ’টক করা হয়েছে এবং ধ’র্ষ’ণের শিকার ওই নারীকে উদ্ধার করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। এছাড়া আরিফ নামে আরও একজন প’লা’তক রয়েছে। এ ঘটনায় মা’মলা দায়েরের পর অভিযুক্তদেরকে আ’দালতে পাঠানো হবে এবং ভুক্তভোগী ওই নারীকে স্বাস্থ্য পরিক্ষার জন্য ওসিসিতে পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *