ট্রাম্পের সঙ্গে সৌদি বাদশাহর টেলিফোন : ফিলিস্তিন সঙ্কটের স্থায়ী সমাধান করতে হবে

আন্তর্জাতিক

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে টেলিফোনে আলাপকালে সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদি বলেছেন, তার দেশ ফিলিস্তিন সঙ্কটের স্থায়ী এবং সুষ্ঠু সমাধান চায়। সৌদি আরবের আকাশপথ ইসরায়েলকে ব্যবহারের অনুমতি দেয়ায় রোববার বাদশাহর সঙ্গে টেলিফোনে আলাপ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।এসময় বাদশাহ সালমান ফিলিস্তিনিদের স্বার্থের ন্যায্য সমাধানে সৌদি আরবের সমর্থনের কথা জানান।

সোমবার সৌদির রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। গত ১১ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় ইসরায়েলের সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সম্পর্ক স্বাভাবিকের চুক্তিতে পৌঁছানোর পর সৌদি বাদশাহর সঙ্গে টেলিফোনে কথা বললেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।তবে গত সপ্তাহে সৌদি আরব বলেছে, আরব আমিরাত সম্পর্ক স্বাভাবিক করলেও ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত শান্তি চুক্তিতে ইসরায়েল স্বাক্ষর না করলে ওই পথে হাঁটবে না রিয়াদ।

সৌদি প্রেস এজেন্সি বলছে, ট্রাম্পের সঙ্গে টেলিফোনে আলাপকালে ফিলিস্তিনি স্বার্থের স্থায়ী ও সুষ্ঠু সমাধানে পৌঁছাতে এবং শান্তি ফিরিয়ে আনার উদ্যোগে সৌদি আরবের সমর্থনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাদশাহ সালমান।গত সপ্তাহে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে নিয়মিত সরাসরি বিমান চলাচল শুরুর ঘোষণা দেন। তার এই ঘোষণার পর ইসরায়েল-আমিরাতের সব ধরনের বিমানের জন্য নিজেদের আকাশপথ ব্যবহারের অনুমতি দেয় সৌদি আরব।

তেলআবিব থেকে আমিরাতের মাঝে চলাচলকারী বিমানের জন্য আকাশপথ খুলে দেয়ার ঘোষণা দিলেও ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করা হবে না বলে জানিয়েছে সৌদি।হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে সৌদি বাদশাহর সঙ্গে ট্রাম্পের টেলিফোনে আলাপের বিষয়টি জানানো হয়েছে। এতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং ইসরায়েলের বিমানের জন্য সৌদি আরবের আকাশপথ খুলে দেয়ায় বাদশাহর প্রশংসা করেন।

এ সময় আঞ্চলিক সমৃদ্ধি এবং নিরাপত্তা বৃদ্ধির উপায় নিয়ে দুই রাষ্ট্রনেতা আলোচনা করেছেন বলে জানিয়েছে সৌদি প্রেস এজেন্সি।গত সপ্তাহে তেলআবিব এবং ইসরায়েলের মাঝে ঐতিহাসিক বাণিজ্যিক ফ্লাইটের চলাচল শুরু হয়।সূত্র: এএফপি, জাগো নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *