ঢাকায় ফ্লাইট বাড়ালো টার্কিশ এয়ারলাইন্স

আন্তর্জাতিক

ঢাকা থেকে ইস্তাম্বুল রুটে সপ্তাহে ৫টি ফ্লাইট পরিচালনা করার ঘোষণা দিয়েছে টার্কিশ এয়ারলাইন্স।আগামীকাল থেকে বর্ধিত ফ্লাইটটি ঢাকা রুটের যাত্রী পরিবহন করা শুরু করবে।এক বিজ্ঞপ্তিতে টার্কিশ এয়ারলাইনস জানায়, গত ১৭ জুলাই ঢাকা থেকে সপ্তাহে ৩টি করে ফ্লাইটচালু করেছিল বিমান সংস্থাটি।

বর্তমানে সপ্তাহের ৫ দিন রবি, সোম, মঙ্গল, বৃহস্পতি ও শুক্রবার দিনগুলোতে ঢাকা থেকে ফ্লাইট পরিচালনা করা হচ্ছে।বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, তার্কিশ এয়ারলাইন্স, ইউরোপের একমাত্র প্রতিনিধি বিমান সংস্থাহিসেবে বাংলাদেশকে সংযুক্ত করেছে পশ্চিমা বিশ্বের সাথে।এছাড়া যাত্রীদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা বিবেচনায় প্রতিটি ফ্লাইটে বিতরন করা হচ্ছে মাস্ক, স্যানিটাইজার ও ওয়েট টিস্যুসহ বিশেষ হাইজেনিক কিট।

এদিকে,ফিনল্যান্ডের রাজধানী হেলসিংকি থেকে চীনের নানজিংয়ে আরও একটি নতুন রুট চালু হতে যাচ্ছে। ১১ সেপ্টেম্বর থেকে এ ফ্লাইটটি চালু হবে। চীনা কর্তৃপক্ষ ফিনএয়ারকে ফ্লাইট চালাতে অনুমোদন দিয়েছে। এয়ারবাস এ৩৫০-৯০০ বিমান এই ফ্লাইটে ব্যবহার করা হবে। ফিনএয়ারের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার ওলে অরভার এক বিবৃতিতে এসব তথ্য জানিয়েছেন। সিম্পিল ফ্লাইংয়ের খবর।ফিনএয়ারের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার বলেন, চীনের গন্তব্যে আমরা আরও একটি রুট চালু করতে পেরে খুশি। এ ফ্লাইটটি চীনের বাজার ধরতে সহায়তা করবে। সেপ্টেম্বরে আমরা সপ্তাহে দুই বার সাংহাই এবং নানজিংয়ে ফ্লাইট ওড়াবো। ভবিষ্যতে সার্ভিস আরও বাড়িয়ে দেয়া হবে।

বর্তমানে ফিনএয়ার ইউরোপ ও এশিয়ার ৪০টি গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। প্রতিদিন তারা ৮০-৯০টি ফ্লাইট পরিচালনা করে। দিন দিন ফিনএয়ার তাদের ভাল কাজের জন্য প্রশংসিত হচ্ছে। তারা যাত্রীসেবায় নতুন নতুন ফ্লাইটও যুক্ত করছে। তবে করোনা মহামারিতে চীন আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। চায়না কর্তৃপক্ষের অনুমতিক্রমে সপ্তাহে কিছু আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালাচ্ছে এয়ারলাইন্সগুলো।কিছু বিশেষ কারণে ফিনএয়ার চীনের নানজিংকে বেছে নিয়েছে। তবে এ রুটে প্রচুর যাত্রী হবে এমন চিন্তা করে রুট চালু করেনি ফিনএয়ার। এভিয়েশন বাণিজ্যে ভাল করার ক্ষেত্রে নানাজিং একটি উর্বর ক্ষেত্র। নানজিং রুটে কার্গো বিমান পরিবহনের বিশেষ সুবিধা রয়েছে।

২০১৮ সালের মে মাসে প্রথমবার নানজিংয়ে ফ্লাইট চালু করে ফিনএয়ার। এটা চীনে তাদের সপ্তম গন্তব্য। এর আগে বেইজিং, সাংহাই, চুংকিং, গানঝু, জিআন এবং হংকংয়ে ফ্লাইট চালু করে বিমানসংস্থাটি। নানজিং চীনের পুরনো চার রাজধানী শহরের একটি। ৮০ লাখের বেশি জনসংখ্যা অধ্যুষিত এ অঞ্চল বাণিজ্য ও পর্যটনের ক্ষেত্রে সমৃদ্ধ। থাইল্যান্ডের ফিনএয়ার এয়ালাইন্সটি ‌’ওয়ান ওয়ার্ল্ড অ্যালায়েন্স’-এর সদস্য। ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ ও আমেরিকান এয়ারলাইন্সের মতো বড় কোম্পানির সঙ্গে তাদের কোডশেয়ার চুক্তি রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *