তওবা করলে আকাশসম পাপও আল্লাহ ক্ষমা করেন

জাতীয়

তওবা হলো আল্লাহর দরবারে ক্ষমা প্রার্থনা করা। আল্লাহর কাছে মানুষ নিজের পাপের জন্য তওবা করলে আল্লাহ তা ক্ষমা করেন। পাপ যত বড়ই হোক না কেন, আল্লাহ অশেষ অনুগ্রহে তা ক্ষমা করেন। পবিত্র কোরআনে আল্লাহ মানুষকে তওবার নির্দেশ দিয়ে বলেছেন। আল্লাহ বলেন, ‘আর আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাও, নিশ্চয়ই আল্লাহ ক্ষমাকারী ও অতিশয় দয়ালু।’ (সুরা নিসা, আয়াত : ১০৬) অন্য আয়াতে ইরশাদ

হয়েছে, ‘আমার বান্দাদের জানিয়ে দিন, আমি ক্ষমাকারী ও দয়ালু।’ (সুরা হিজর, আয়াত : ৪৯) আনাস (রা.) থেকে বর্ণিত, ‘তিনি বলেন, আমি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বলতে শুনেছি যে মহান আল্লাহ বলেন, হে আদম সন্তান! তুমি যত দিন পর্যন্ত আমার কাছে

দোয়া করতে থাকবে এবং ক্ষমা প্রার্থনা করতে থাকবে, আমি তত দিন তোমার গুনাহ মাফ করতে থাকব, তুমি যা-ই করে থাকো আমি সেদিকে ভ্রুক্ষেপ করব না। হে আদম সন্তান! i তোমার গুনাহ যদি আকাশের উচ্চতা পর্যন্তও পৌঁছে যায়, অতঃপর তুমি আমার কাছে ক্ষমা

চাও তবুও আমি তোমাকে ক্ষমা করব, আমি সেদিকে ভ্রুক্ষেপ করব না। হে আদম সন্তান! তুমি যদি পৃথিবী পরিমাণ গুনাহ নিয়ে আমার কাছে আসো এবং আমার সঙ্গে কোনো কিছুকে শরিক না করে থাকো, তাহলে আমিও সমপরিমাণ ক্ষমা নিয়ে তোমার কাছে আসব।’ (সুনানে তিরমিজি, হাদিস : ৩৫৪০) মানুষের গুনাহ যত বড়ই হোক না কেন, যদি সে তওবা করে, আল্লাহ তা ক্ষমা করবেন। i

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *