দিঘির সঙ্গে কে এই যুবক,অবশেষে জানা গেল তার পরিচয়

জাতীয়

চাচ্চু’, ‘দাদী মা’, ‘পাঁচ টাকার প্রেম’সহ একের পর এক হিট ছবিতে শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয় করে দর্শকদের নজর কাড়েন প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করার পর চলচ্চিত্র থেকে দূরে রয়েছেন তিনি। তবে এবার একবারে পাঁচটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। এরমধ্যে ‘টুঙ্গীপাড়ার মিয়া ভাই’ সিনেমার মাধ্যমেই বড় পর্দায় নায়িকা হিসেবে অভিষেক হয়েছে

এক সময়ের জনপ্রিয় এই শিশু শিল্পীর। তবে মালেক আফসারী পরিচালিত ‘ধামাকা’ নামের সিনেমায় দীঘিকে ‘টমবয়’ রূপে পর্দায় দেখাতে চান নির্মাতা।এ দিকে নিজের ফেসবুকে মাঝে মধ্যেই ছবি আপলোড করেন দিঘি। সঙ্গে আরেকজনকে দেখা যায়। এবার বোধ হয় বিষয়টি তার জন্য অস্বস্তি বয়ে আনলো।

সম্প্রতি তেমনি একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। যা নিয়ে তীব্র সমালোচনা। পরে দিঘির ফেসবুক ঘেঁটে দেখা গেলো তিনি আর কেউ নন, দিঘির মামা।করোনার কারণে আপাতত বাসা থেকে পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছেন দীঘি। তিনি বর্তমানে এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষে ছাত্রী, ক’দিন আগে অনলাইনে পরীক্ষা দিয়েছেন।

আরও পড়ুন=সারাবিশ্বের মতো বাংলাদেশের মানুষ করোনাভাইরাসের দুর্যোগ পার করছে। তবে দুই মাস ধরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে সব ধরনের কার্যক্রম। এমনকি সিনেমার শুটিংও শুরু হয়েছে। তাই সরকারি অনুদানে নির্মাণাধীন ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ সিনেমার শুটিং শেষ করেছেন পরীমনি ও চিত্রনায়ক সিয়াম। সুন্দরবনসহ বিভিন্ন স্থানে সিনেমাটির দৃশ্যধারণের কাজ হয়েছে। শুটিং শেষে বুধবার ঢাকায় ফেরার পথে যশোর বিমানবন্দরে কয়েকটি ছবি তুলেন পরীমনি। আর এসব ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেন তিনি। ছবিতে দেখা যায়, গ্লাভস ও মাস্ক পরা যুবকের সঙ্গে রয়েছেন পরীমনি। তিনি ক্যাপশনে লিখেছেন,

‘কি চেনা যায়’।প্রখ্যাত লেখক মুহাম্মদ জাফর ইকবালের ‘রাতুলের রাত রাতুলের দিন’ কিশোর সাহিত্যের বই অবলম্বনে নির্মিত হচ্ছে ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ সিনেমাটি। এটি পরিচালনা করছেন আবু রায়হান জুয়েল। আর চিত্রনাট্য রচনা করেছেন জাকারিয়া সৌখিন।গত ১৪ মার্চ এই সিনেমার শুটিং শুরু হয়। লঞ্চে একটানা ২৫ দিন শুটিং করার কথা থাকলেও করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে আট দিনের শুটিং বাকি রেখেই ঢাকায় ফিরতে হয় সিনেমাটির টিমকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *