প্রবাসীর স্ত্রীকে মারধর করলেন শ্বশুর-শাশুড়ি

জাতীয়

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় সৌদি আরব প্রবা-সীর স্ত্রী-কে মারধর করলেন শ্ব-শু-র-শা-শু-ড়ি। এ সময় নি-র্যাতিতা গৃহবধূর আড়াই বছর বয়সী ছেলে কাঁ-দতে থাকলেও নি-র্যাতন থামেনি। এ ঘ-টনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মু-হূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়। বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা সৃষ্টি হলে গতকাল শনিবার রাতে অভিযু-ক্ত শা-শুড়ি আলেয়া বেগমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।উপজেলার আমারগাছিয়া ইউনিয়নের মানিকখালী গ্রামে এ ঘট-না ঘটে।

আহত গৃহবধূর নাম তানজিলা বেগম (২৬)। তিনি ওই এলাকার সৌদি আরব প্রবাসী নাসির উদ্দিন মুন্সির স্ত্রী। গতকাল শনিবার রাতে এ বিষয়ে আহত গৃ-হবধূ তানজিলা বেগমের বাবা ছিদ্দিক মীর বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আ জ মো. মাসুদুজ্জামান।মামলায় আসামিরা হলেন- আহত গৃ-হবধূর শ্ব-শুর ধলু মুন্সি (৫৫), শা-শুড়ি আলেয়া বেগম (৪৫) ও চাচা শ্ব-শুর নূর মোহাম্মদ।

আহত গৃহবধূর বাবা ছিদ্দিক মীর জানান, গত বৃহ-স্পতিবার তার মেয়ের স-ঙ্গে পারিবারিক একটি বিষয় নিয়ে তার শা-শুড়ি আলেয়া বেগমের তর্ক হয়। এ সময় তার মেয়ের শ্ব-শুর ধলু মুন্সি তার মেয়েকে ধরে ঘরের সামনে উঠানে ছুঁড়ে মারেন। এরপর তাকে তার শ্ব-শুর, শা-শুড়ি ও চাচা শ্ব-শুর মিলে মারধর করেন।তিনি জানান,

এ ঘ-টনা তার ৮ বছরের নাতনি নারগিস মোবাইলে ভি-ডিও করে। পরে বিষয়টি তিনি জানতে পেরে শ্ব-শুর বাড়ি থেকে তার আহত মেয়েকে উ-দ্ধার করে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বা-স্থ্য কম-প্লেক্সে ভ-র্তি করেন।ওসি আ জ মো. মাসুদুজ্জামান, ঘ-টনা জানার পরপরই শনিবার রাতে আহত গৃ-হবধূ তানজিলার বাবা ছিদ্দিক মীর বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন।

পুলিশ শনিবার রা-তেই অভিযু-ক্ত শা-শুড়ি আলেয়া বেগমকে গ্রে-প্তার করেছে। অন্য আসামিদের গ্রে-প্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা-।সূত্র: আমাদের সময়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *