প্রায় দেড় লক্ষ মানুষের মাহফিলে বক্তব্য শুরু করেন মিজানুর রহমান আজহারী, থামিয়ে দিল পুলিশ!

বর্তমান সময়ের আলোচিত তরুণ মুফাসসির ও ইসলামী স্কলার মাওলানা ড. মিজানুর রহমান আজহারীর ওয়াজের খবর শুনে প্রচণ্ড শীত আর শৈত্যপ্রবাহ উপেক্ষা করে আসরের পর থেকে হাজার হাজার মানুষ মাহফিলে আসতে শুরু করেন। কক্সবাজারের সদর উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়নের বৃহত্তর খরুলিয়ার দরগাহ পাড়া ষ্টেশন সংলগ্ন মাঠে বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) রাতে অনুষ্ঠিত হয় এই মাহফিল।

স্থানীয় সূত্র জানায়, আজহারীর ওয়াজ শুনতে শিশু থেকে শুরু করে লক্ষাধিক নারী-পুরুষের সমাগম ঘটে। বিশেষ করে রামু, সদর, উখিয়া, টেকনাফ, মহেশখালী, কুতুবদিয়া, চকরিয়া ও পেকুয়াসহ বেশ কয়েকটি জেলা-উপজেলা থেকে এসে লোকজন তার মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন। আজহারী বক্তব্য শুরু করার সাথে সাথে এক পুলিশ সদস্য এসে তাঁকে থামিয়ে দেন। এসময় উত্তেজিত হয়ে পড়ে উপস্থিত জনতা। এসময় আজহারী নিজেই জনতাকে থামতে বলে বলেন, বসেন ভালো কথা বলতেছে।

একটি ভিডিওতে দেখা যায়, ঐ পুলিশ সদস্য আজহারীকে বলছিলেন, পুরো কক্সবাজার শহর জ্যাম হয়ে গেছে।দরগাহ পাড়া ইসলামী জনকল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে এ মাহফিলের আয়োজন করেন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর-রামু আসনের সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান টিপু সুলতান।

মাওলানা ওসমান গণির সভাপতিত্বে মাহফিলে মাওলানা আজহারী ছাড়াও বক্তব্য রাখেন মাওলানা আশরাফুল ইসলাম বিপ্লবী, মাওলানা আব্দুর রহিম ও মাওলানা শফিউল হক জিহাদী প্রমুখ। মাহফিলে আসা মুসল্লিরা জানান, মিজানুর রহমান আজহারীর ওয়াজ শুনতে তারা দূর-দূরান্ত থেকে দরগাহ পাড়ায় ছুটে এসেছেন। আজকের মাহফিলে দেড় লাখ মানুষ অংশ নিয়েছেন। মাঠ ভরে বাইরে দাঁড়িয়েও ওয়াজ শুনেছেন মুসল্লিরা। এসময় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের দু’পাশে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

Leave a Comment