বন্ধুদের নিয়ে ভাবি'কে ধ'র্ষ'ণ ক'রলো দেবর! - Probashi NewsProbashi News

বন্ধুদের নিয়ে ভাবি’কে ধ’র্ষ’ণ ক’রলো দেবর!

মানিকগঞ্জের ঘিওরে এক গৃহবধূকে গ’ণ’ধ’র্ষ’ণের অভি’যোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর মা বাদী হয়ে ১১ জনকে আ’সামি করে থা’নায় মা’মলা করেছেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িত তিনজনকে গ্রে’ফতার করেছে পুলিশ। উ’দ্ধার করা হয়েছে ধ’র্ষ’ণের সময় ধারণ করা ভি’ডিও ক্লিপ।গ্রে’ফ’তাররা হলেন- উপজেলার বড়টিয়া ইউনিয়নের মৌহালী গ্রামের ছলিম মিয়ার ছেলে ওয়াসিম হোসেন (২০), সাজাহান মিয়ার ছেলে রাকিব হোসেন (২০) ও আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে রেদোয়ান (২০)।

রোববার (৩১ মে) রাত থেকে সোমবার (১ জুন) ভোর পযর্ন্ত বিভিন্ন স্থানে অভি’যান চালিয়ে তাদের গ্রে’ফ’তার করা হয়।ওই গৃহবধূর মা জানান, ঈদের দিন তার মেয়ে তাদের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। পরদিন সকালে প্রতিবেশী দেবর ওয়াসিম ফোন করে তার অবস্থান জেনে নেয়। সকাল ১০টার দিকে বাড়ির পাশে বড়টিয়া বাজারে মোবাইলে ফ্লেক্সিলোড করতে গেলে তার সঙ্গে ওয়াসিমের দেখা হয়। এ সময় ওয়াসিমের বন্ধু রাকিবও সঙ্গে ছিল।

ওয়াসিম কথা আছে বলে হাঁটতে হাঁটতে তার মেয়েকে নিয়ে একটি নি’র্জন বাড়ির পেছনে নিয়ে যায়। সেখানে আগে থেকেই অ’পেক্ষায় ছিল অন্যান্যা আ’সা’মিরা। যারা সবাই ওয়াসিমের বন্ধু-বান্ধব এবং এলাকায় ব’খাটে হিসেবে পরিচিত।সেখানে তার মেয়ের হাত-মুখ চে’পে ধরে পালা’ক্র’মে ধ’র্ষ’ণ করে তারা। সেই দৃ’শ্য তারা মোবাইল ফোনে ভি’ডিও করে। ঘটনার পর ব’খাটেরা পা’লিয়ে যায়।

স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে অসুস্থ অবস্থায় তার মেয়েকে উ’দ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসেন স্বজনরা। পরে বি’স্তারিত জানতে পারেন তারা।এদিকে এ ঘটনা ধামা’চাপা দেয়ার চেষ্টা চালায় স্থানীয় একটি মহল। তিনদিন পর ঘটনা জানতে পেরে ভিক’টিমকে উ’দ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। রোববার রাতে ভিক’টিমের মা বা’দী হয়ে মা’মলা করেন।ঘিওর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফুল আলম জানান,

লোকমুখে ঘটনা জানার পর ভিক’টিমকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তারা খুবই দরিদ্র হওয়ার কারণে মা’মলা না করার জন্য স্থানীয় একটি মহল পরামর্শ দিয়েছিল। গণ’ধ’র্ষ’ণ মা’ম’লায় ১১ জন আ’সামি। যাদের প্রত্যেকের বয়স ১৮ থেকে ২০ বছরের মধ্যে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত তিনজনকে গ্রে’ফ’তার করে আ’দা’লতে পাঠানো হয়েছে।ওসি আরও জানান, সোমবার সকালে জেলা সদর হাসপাতালে ওই গৃহবধূর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। বাকি আ’সা’মিদের গ্রে’ফ’তারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *