যার-তার সঙ্গে ছবি তোলার বিষয়ে সতর্ক করলেন আ.লীগ নেতারা

জাতীয়

যার তার সঙ্গে ছবি তোলার বেলায় দলীয় নেতা-কর্মীদের আরো সচেতন হওয়া উচিত বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতারা। সম্প্রতি ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের সঙ্গে ছবি ব্যবহার করে বেশ কিছু প্রতারণার ঘটনা ঘটেছে।

এসব ঘটনায় নেতাদের কোনো দায় দেখছে না পুলিশ। তবে দলের অনেকেই মনে করেন, প্রতারণার সুযোগ যাতে সৃষ্টি না হয়, সে বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে।

কখনো আওয়ামী লীগ নেতা, কখনো গণমাধ্যমকর্মী। ভুয়া পরিচয় দিয়ে যুক্ত হন অপকর্মে। সুযোগ বুঝে রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে ছবি দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গড়ে তোলেন এক ধরণের ইমেজ। ছবি ব্যবহার করে, নেতাদের নাম ভাঙিয়ে ফাঁদ পেতে বসেন। এদের খপ্পরে পড়ে সর্বস্ব হারাচ্ছে বহু মানুষ।

সম্প্রতি পথশিশু জিনিয়া অপহরণকারী লুপা তালুকদার থেকে শুরু করে, রিজেন্টের শাহেদ, জেকেজির সাবরিনা কিংবা প্রতারক বাবা ছেলে আদর-কালু। সবারই প্রতারণার ধরণ প্রায় একই। রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় মানুষের টাকা হাতিয়ে নিয়ে একেকজন আঙুল ফুলে কলাগাছ। বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ তাদের প্রতারণার শিকার।

রাজনৈতিক বিশ্লেষক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘তার মানে হচ্ছে রাজনীতিতে অনেক সংকট তৈরি হয়ে গেছে।’

সম্প্রতি প্রায় সব প্রতারণায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতাদের ছবি ব্যবহার করা হচ্ছে। কখনো ফটোশপে এডিট করেও নেতাদের ছবি বসিয়ে দেয়া হয়। কি ভাবছে আওয়ামী লীগ?

আওয়ামী লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম বলেন, ‘আপাতত বিতর্ক হলেও একটা সময় সব পরিষ্কার হয়ে যাবে। সুতরাং এই বিতর্ক তখন আর থাকবে না।’

কেউ রাজনৈতিক নেতাদের নাম ভাঙিয়ে জালিয়াতি ও প্রতারণা করতে চাইলে আইনের আশ্রয় নেয়ার তাগিদ সংশ্লিষ্টদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *