সুশান্তের ফরেনসিক টেস্টের ভিডিও ভাইরাল, কথোপকথন ফাঁস

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই একের পর এক ছবি ভিডিও ভাইরাল হয়েছেন নেট দুনিয়ায়। সুশান্ত সিং রাজপুতের বাড়ি থেকেই একাধিক ভিডিও ও ছবি ফাঁস হয়। যা মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এবার সামনে এল তার ফরেনসিকের এক ভিডিও। আর সেই ভিডিওই তুলে আনল নতুন তথ্য।ভিডিওতে দেখা গিয়েছিল সুশান্তের মরদেহ বিছানাতে রেখে পুলিশ ফরেনসিক স্টেস্টে ব্যস্ত। এমনই সময় কেউ ভিডিও করে, যেখানে শোনা যায় দুই ব্যক্তির কথোপকথন, যেখানে তারা বলছেন, এই ভিডিও ফাঁস হওয়াটা ঠিক হবে না, তবে তদন্ত নষ্ট হয়ে যেতে পারে। যদিও ভিডিওর সত্যতা এখনও সামনে আসেনি। এই দুই ব্যক্তি কারা তাও জানা যায়নি এখনও।

কীভাবে সুশান্তের ফ্ল্যাট থেকে তার মরদেহের ছবি, তার ফরেনসিক টেস্টের ভিডিও ভাইরাল হল তা স্পষ্ট নয় কারো কাছেই। এই নিয়ে একাধিকবার মুম্বাই পুলিশকে প্রশ্ন করা হলে তাদের থেকেও পাওয়া যায়নি কোনও উত্তর।বর্তমানে সুশান্তের বাবা কেকে সিং মামলা করেছেন প্রেমিকা রিয়ার বিরুদ্ধে। তার অভিযোগের ভিত্তিতেই এগোচ্ছে তদন্তের গতি।ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন

আরও পড়ুন=চ্যানেল আইয়ের ‘ক্ষুদে গানরাজ’ প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন পড়শি। তিনি ফুচকা খেতে ভীষণ পচ্ছন্দ করেন। করোনার কারণে তিনি অনেকদিন ফুচকা খেতে পারেননি। আর তাই তিনি তার মাকে মজার ছলেই বলেছেন ফুচকাওয়ালাকে বিয়ে করবেন! যেন ফুচকা খেতে কোনো সমস্যা না হয়। একটি জাতীয় দৈনিকে এমনটায় জানিয়েছেন পড়শি। ফুচকার প্রতি দূর্বলতা প্রচুর তার। এ বিষয়ে তিনি জানান, ফুচকার লোভ দেখিয়ে যে কেউ তাকে বশ করতে পারে। ফুচকা এতটায় প্রিয় যে যেকেউ যোকোনো সময় ফুচকার কথা বললেই না খাওয়া পর্যন্ত অন্যকিছুতেই মন আর

ছোট বেলা থেকে নাচের প্রতি আগ্রহী হয়ে নাচ শেখেন পড়শি। পরবর্তীতে ক্লাসিক্যাল সংগীত শেখা শুরু করেন। ২০০৭ সালে সরকারিভাবে আয়োজিত ‘কমল কুড়ি’ নামক সংগীত প্রতিযোগিতায় দেশের গান বিভাগে বিজয়ী হন তিনি। ২০০৮ সালে চ্যানেল আইয়ের ‘ক্ষুদে গানরাজ’ নামক গানের প্রতিযোগিতায় ২য় রানার আপ হন তিনিরু২০০৮ সালে ‘ক্ষুদে গানরাজ’-এ ২য় রানার আপ হওয়ার মাধ্যমে মূলত সঙ্গীত কর্মজীবন শুরু করেন। ২০০৯ সালে তিনি তার একক অ্যালবাম ‘পড়শি’র কাজ শুরু করেন। প্রথম অ্যালবামের পর পড়শির দ্বিতীয় ও তৃতীয় অ্যালমাব প্রকাশ পায়। সিনেমার প্লেব্যাকেও গেয়েছেন তিনি।

Leave a Comment